আই পি এল ফাইনালে ৮ উইকেটে জয় চেন্নাই সুপার কিংস এর!!

আই পি এল ফাইনালে ৮ উইকেটে জয় চেন্নাই সুপার কিংস এর!!

আই পি এল ২০১৮  এর ফাইনালে  সাকিবের দল  সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ কে ৮ উইকেটে হারিয়ে আই পি এল এর শিরোপা  নিজের নামে করে নিল চেন্নাই সুপার কিংস ।

চেন্নাই সুপার কিংস কে শেন ওয়াটসন ৫৭  বলে ১১৭ রানের অপরাজিত এক বিধ্বংসী ইনিংস  এর মাধ্যমে জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেন।

এ দিন চেন্নাই সুপার কিংস  টস এ জিতে  ব্যাটিং  পাঠায় এ পাঠায় সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ কে। মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে টসে হেরে ব্যাট করতে শুরুটা ভালো হয়নি হায়দরাবাদের। দ্বিতীয় ওভারেই  মাত্র ৫ রানে ফিরে যান শ্রীবৎস গোস্বামী। তবে ওয়ান ডাউনে নেমে অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ওপেনার শিখর ধাওয়ানের সঙ্গে বড় জুটি গড়ে শুরুর ধাক্কাটা সামলে নেন । সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ  এর হয়ে  কেন উইলিয়ামসন করেন  ৩৬ বলে ৪৫ রান।জাদেজার সঙ্গে জুটি ভাঙ্গে ৮.৩  ওভার এ । তখন অধিনায়ক উইলিয়ামসন কে সঙ্গ দিতে আশেন সাকিব আল  হাসান।  সাকিব আল হাসান    ১৫ বলে  ২ ছক্কা ও এক চারে করেন ২৩ রান । শেষ পর্যন্ত ইউসুফ পাঠান এর ২৫ বলে ৪৫ রান এর উপর ভর করে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ ৬ উইকেট হারিয়ে ২০ ওভার এ ১৭৮ রান করে ।

রান চেসিং এ মেডেন দিয়ে শুরু করেছিল হায়দরাবাদ বোলাররা। প্রথম তিন ওভারে রান দিয়েছিল মাত্র ১০।কিন্তু ১০ বলেও রান এর খাতা না খোলা   শেন ওয়াটসন ঝড় টা যে এখনো  বাকি টা হয়তো  হায়দ্রাবাদ  টের করতে  পারেনি। ডু  প্লেসিস এর ১০ রানে  আউট হয়ে ফিরে যাওয়ার পর রায়নার সঙ্গে মিলে খেললেন ৫৭ বলে ১১৭  রানের এক বিধ্বংসী জুটি।  ৩২ রান করে রায়না ফিরে গেলেও  অস্ট্রেলীয় অলরাউন্ডারের ব্যাটসম্যানের ব্যাট থামেনি। তুলে নিয়েছেন আইপিএল নিজের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। মাঠে থেকেছেন ,লড়েছেন  বিজয় অব্দি।

শেন ওয়াটসনের  ৮ ছক্কা , ৪ চারের  ১১৭ রানের অপরাজিত ইনিংসে ১৭৯ রানের লক্ষ্য পার হয়ে গেল একেবারে অনায়াসে।১১ বল  হাতে রেখে ম্যাচ জিতে নিল  ৮ উইকেট বাকি থাকতে। তৃতীয়বারের মতো আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হলো চেন্নাই।

এদিনে  বলিং এ সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের বলার রা শুরু টা ভালো করলেও  শেষে শেন ওয়াটসনের  ব্যাটিং  এ চুপসে গিয়েছিল ।কার্লস  ব্রেথওয়েট ২ ওভার ৩ বল করে ২৭ রান দিয়ে পান  একটি উইকেট, মান্দিপ শর্মা  ৪   ওভারে ৫২ রান দিয়ে পান এক উইকেট এটাই ছিল সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের বলারদের  সাফল্য ।সাকিব অবশ্য আফসোস করতে পারেন। বল হাতে ১ ওভারে ১৫ রান দেওয়ার পর আক্রমণে ফেরার আর সুযোগই পেলেন না।

 

 

 

Share this post