২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় প্রকাশঃ বাবর ও পিন্টুসহ ২০ জনের ফাঁসি

২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় প্রকাশঃ বাবর ও পিন্টুসহ ২০ জনের ফাঁসি

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় বিএনপি – জামায়াত জোট সরকারের সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর ,
সাবেক উপমন্ত্রী আব্দুস সালাম পিন্টুসহ ২০ আসামীর মৃত্যুদণ্ড এবং
বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান ও খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরীসহ
১৭ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত ।

আজ পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে স্থাপিত ঢাকার
এক নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শাহেদ নূর উদ্দিনের আদালত এ রায় ঘোষণা করেন ।

এর আগে, গত ১৮ সেপ্টেম্বর গ্রেনেড হামলার ঘটনায় দায়ের করা দুই মামলার যুক্তিতর্ক শেষ হয় ।
যুক্তিতর্ক শেষে রাষ্ট্রপক্ষ সব আসামির সর্বোচ্চ শাস্তি এবং আসামিপক্ষ সব আসামির বেকসুর খালাস দাবি করে ।
সেদিনই এই মামলার রায় ঘোষণার জন্য আজকের তারিখ ঠিক করেন ট্রাইব্যুনাল ।
মামলাটি প্রমাণে রাষ্ট্রপক্ষে ৫১১ জনের মধ্যে ২২৫ জন সাক্ষীকে আদালতে হাজির করা হয় ।

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার মোট আসামি ছিলেন ৫২ জন । মামলার মোট ৫২ আসামি থাকলেও
অন্য মামলায় মৃত্যুদন্ডের রায় কার্যকর হয়েছে ৩ জনের । এ কারণে বুধবার ৪৯ আসামীর রায় পড়েন বিচারক ।
মামলায় মোট ৩১ জন আসামি কারাগারে থাকলেও এদের মধ্যে পলাতক তারেক রহমান সহ ১৮ জন ।
আর আসামিদের মধ্যে আট জন জামিনে থাকলেও রায়ের দিন নির্ধারণ করার আগে
তাদের জামিন বাতিল করে কারাগারে আটক রাখার আদেশ দেন ট্রাইব্যুনাল ।
রায় ঘোষণার সময় পলাতক ১৮ জন ছাড়া বাকি ৩১ আসামির সবাইকে আদালতে হাজির করা হয়
এদের বিরুদ্ধে নতুন করে গ্রেপ্তারি পরোয়ারা জারি করে আদালত ।

মামলাটিতে মোট ১১৯ কার্যদিবস যুক্তি উপস্থান হয়েছে ।
এর মধ্যে রাষ্ট্রপক্ষ নিয়েছে ২৯ কার্যদিবস আর আসামিপক্ষ নিয়েছে ৯০ কার্যদিবস ।

রায়ের পর্যবেক্ষনে বিচারক বলেন, হাওয়া ভবনে বসে তারেক রহমানের তত্ত্বাবধানে হামলার পরিকল্পনা,
বাস্তবায়ন ও আসামীদের পালিয়ে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করা করা হয় ।
এ ঘটনাকে বিরোধী দল নিশ্চিহ্ণ করার প্রয়াস বলেও উল্লেখ করেন আদালত ।

রায়ে তারেক রহমান সহ অন্যদের মুত্যুদন্ড চেয়ে আপিল করবে রাষ্ট্রপক্ষ ।
আর রায়ের বিরুদ্ধে আপিলের প্রস্তুতির কথা জানায় আসামীপক্ষ ।

Share this post