সড়ক দুর্ঘটনায় তিন জেলায় নিহত ১১ আহত ৮৩

সড়ক দুর্ঘটনায় তিন জেলায় নিহত ১১ আহত ৮৩

রংপুরে দুটি বাসের সংঘর্ষে প্রাণ হারিয়েছেন এক শিশু ও ৪ নারীসহ ৭ জন, আহত ৪৭ জন।

বগুড়া থেকে পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধাগামী বিআরটিসি একটি বাসের সঙ্গে ঠাকুরগাঁও থেকে রংপুরগামী একটি মিনি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।
“এ সময় বাস দুটি রাস্তার পাশে ছিটকে পড়ে এবং বিআরটিসি বাসটি দুমড়েমুচড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই চারজনের মৃত্যু হয়।”
আহত হয় অন্তত ৪৭ জন। তাদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যায় আরও কয়েকজন।

আহতরা জানান, বিআরটিসির বাসটি দ্রুত গতিতে একটি অটোরিকশাকে পাশ কাটাতে গিয়ে লোকাল বাসের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। দুর্ঘটনার পর ঢাকা-দিনাজপুর মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন স্থানীয়রা। এ ঘটনায় বিআরটিসি বাসের চালককে আটক করেছে পুলিশ। আরেক বাসের চালক পলাতক

নিহতরা হলেন নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার মৃত শহিদুল ইসলামের স্ত্রী নুর বানু (৪৪), একই উপজেলার ফুলকি বেগম(৫৫), সৈয়দপুর উপজেলার বোতলাগাড়ী গ্রামের আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী অমিজন নেছা (৪৬), গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জের তালুকবর্মণ এলাকার রুবেল মিয়ার স্ত্রী রোখসানা বেগম (২৪), পঞ্চগড়ের শাহিন মিয়া (১২), পঞ্চড়ের তেঁতুলিয়া থানার কনস্টেবল মামুনের স্ত্রী সুমি আখতার (২৪) এবং ঠাকুরগাঁওয়ের ধবলি এলাকার বাসিন্দা আব্দুর রহমান (৭০)।

এছাড়াও বগুড়াতে দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহত ও ৩৬ জন আহত হয়েছেন। চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ট্রাকচাপায় নিহত হয়েছেন মানসিক ভারসাম্যহীন এক নারী।

Share this post