রাজীবের ভাইদের কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ সংক্রান্ত আদেশ স্থগিত

রাজীবের ভাইদের কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ  সংক্রান্ত আদেশ স্থগিত

রাজীবের ভাইদের কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ স্থগিত করে রাজীব হোসেনের সড়ক দুর্ঘটনায় দায় ও ক্ষতিপূরণ নিরূপণে একটি স্বাধীন কমিটি গঠন করতে হাইকোর্টকে নির্দেশ দিয়েছেন আপিল বিভাগ থেকে এ আদেশ দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন (বিআরটিসি) ও স্বজন পরিবহনের করা লিভ টু আপিল নিষ্পত্তি করে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন চার সদস্যদের আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন।

আদেশে বলা হয়,দায় ও ক্ষতিপূরণ নিরূপণে গঠিত কমিটি দায় নিরূপণ করে ক্ষতিপূরণ নির্ধারণ করবে। আগামী ৩০ জুনের মধ্যে এই প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে। দায়ীপক্ষ বা দায়ীপক্ষগুলো পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণ দেবে।

আপিল নিষ্পত্তিকালে আদালতে বিআরটিসির পক্ষে ছিলেন এ বি এম বায়েজিদ ও মুনীরুজ্জামান। স্বজন পরিবহনের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন আইনজীবী আবদুল মতিন খসরু ও পঙ্কজ  কুণ্ডু। রিট আবেদনকারী আইনজীবী রুহুল কুদ্দুস কাজলও উপস্থিত ছিলেন।

আইনজীবী রুহুল কুদ্দুস কাজল এর করা রিট এ বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ ৮ মে রাজীবের পরিবারকে এক কোটি টাকা দেওয়ার নির্দেশ দেন। ক্ষতিপূরণ হিসেবে রাজীবের পরিবারকে এই টাকা পরিশোধ করবে রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থা বিআরটিসি ও বেসরকারি পরিবহন কোম্পানি স্বজন পরিবহন। আগামী এক মাসের মধ্যে অর্ধেক টাকা পরিশোধের নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত।যার পরিপেক্ষিতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন (বিআরটিসি) ও স্বজন পরিবহন আপিল বিভাগে লিভ টু আপিল করেন।

উল্লেখ যে গত ৩ এপ্রিল দুই বাসের রেষারেষিতে এক হাত হারান তিতুমীর কলেজর ছাত্র রাজীব হোসেন পরবর্তীতে  ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ১৬ এপ্রিল রাতে মারা যান তিনি। গণমাধ্যমে  হাত হারানোর সংবাদ প্রকাশের পর আদালতে রিট করেন আইনজীবী রুহুল কুদ্দুস কাজল।

 

 

Share this post