বন্দুকযুদ্ধে পাঁচ জেলায় ৮ মাদক ব্যবসায়ীর মৃত্যু

বন্দুকযুদ্ধে পাঁচ জেলায় ৮ মাদক ব্যবসায়ীর মৃত্যু

পৃথক পৃথক বন্দুক যুদ্ধে পুলিশের মাদকবিরোধী অভিযানে কুমিল্লায় ২, ফেনীতে ২, নারায়ণগঞ্জ ১, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ১ ও মাগুরায় ২ জন সহ মোট ৮ জন নিহত হয়েছেন। নিহত ব্যক্তিদেরকে মাদক ব্যবসায়ী বলে গণমাধ্যমের কাছে দাবি করছে পুলিশ।

উল্লেখ্য যে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে গত ১০ দিনে নিহতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৫১ জনে।

গতরাত ১টায় কুমিল্লার সদর দক্ষিণ ও চৌদ্দগ্রামে পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলিতে ২ জন নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- বাবুল প্রকাশ ওরফে লম্বা বাবুল (৩৮) ও রাজীব (২৮)। নিহত বাবুল চৌদ্দগ্রাম উপজেলার বৈদ্দেরখিল গ্রামের হাফেজ আহাম্মদের ছেলে এবং রাজীব সদর দক্ষিণ উপজেলার কোটবাড়িসংলগ্ন চাঙ্গিনী গ্রামের মৃত শাহ আলমের ছেলে।

ফেনীর ফুলগাজীতে রাত ৩টায় পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলিতে নিহত হন শাহ মিরান শামীম ও মজনু মিয়া।বৃহস্পতিবার  ভোরে উপজেলার সীমান্তবর্তী জাম্বুড়া এলাকায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধে’র ঘটনা ঘটে। নিহতদের পরিবারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা অভিযোগ, শামীম ও মজনুকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে মুক্তিপণ দাবি করে পুলিশ। টাকা দিতে না পারায় গুলি করে হত্যা করা হয়। অভিযোগ অস্বীকার করে ফুলগাজী থানার অফিসার ইনচার্জ হুমায়ুন কবীর জানান, বৃহস্পতিবার (২৪ শে মে ) ভোরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সীমান্তবর্তী জাম্বুড়া এলাকায় অভিযান চালায় পুলিশ। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশের উপর গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়লে দুই মাদক ব্যবসায়ী আহত হয়। আহত অবস্থায় উদ্ধার করে তাদের কে হাসপাতালে পাঠানো হলে সেখানে তাদের মৃত্যু হয়। পুলিশ জানায় ঘটনাস্থল থেকে ২শ’ বোতল ফেনসিডিল ও ৭শ’ পিস ইয়াবা, একটি পিস্তল ও একটি কার্তুজ উদ্ধার করা হয়।

অন্যদিকে বৃহস্পতিবার ভোর তিনটায় নারায়ণগঞ্জের  সিদ্ধিরগঞ্জের দক্ষিণ নিমাইকাসারী ক্যানেলপাড় বজলুখানে গোলাগুলিতে নিহত হন সেলিম নামে এক মাদক ব্যবসায়ি।নিহত সেলিম ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সিদ্ধিরগঞ্জের নিমাইকাসারী বাঘমারা এলাকার আবুল কাশেমের ছেলে।পুলিশের জানায়,সেলিমের বাবা কাশেম এলাকায় গাঁজার ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করে।  সেলিমের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ সহ বিভিন্ন থানায় ১৫টির ও বেশি মাদক মামলা রয়েছে।

পৃথক আরেক  ঘটনায় রাত ২টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় গোলাগুলিতে নিহত হন আমির খাঁ (৪০)নামে এক ব্যক্তি । পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি পাইপগান, একটি কার্তুজ, একটি রামদা ও ১০ কেজি গাঁজা উদ্ধার করে বলে জানান বাংলা নিউজ কে জানান আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোশাররফ হোসেন তরফদার। এ ঘটনায় আখাউড়া থানা পুলিশের তিন সদস্য আহত হয়েছেন। তাদেরকে আখাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে গভীর রাতে মাগুরায় হাউজিং প্রজেক্টে  মাদক ব্যবসায়ীদের গোলাগুলিতে আইয়ুব হোসেন ও মিজানুর রহমান কালু নামে ২ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের একজনের বাড়ি পৌর এলাকার নিজনান্দুয়ালী গ্রামে ও অন্যজন  ভায়না গ্রামের বাসিন্দা। পুলিশ জানায় নিহতদের বিরুদ্ধে থানায় ২০টির বেশি মাদকের মামলা রয়েছে।

 

Share this post

One thought on “বন্দুকযুদ্ধে পাঁচ জেলায় ৮ মাদক ব্যবসায়ীর মৃত্যু