প্রেমিকের মায়ের অপমানে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা

প্রেমিকের মায়ের অপমানে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা

পিরোজপুর জেলার নাজিরপুরে প্রেমিকের মায়ের অপমান সইতে না পেরে অপু হালদার নামে এক কলেজ ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে।

১৮ বছর বয়সী নিহত অপু হালদার দীর্ঘা ইউনিয়নের মাদারবাড়ী গ্রামের ধরনী হালদারের ছোট কন্যা এবং
স্বরূপকাঠী সরকারী কলেজের বাংলায় অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্রী।

নিহতের সেজো বোন পপি হালদার জানান,
অপু হালদারের সাথে বাড়ির সামনের খালের অপর পাড়ের সুকলাল ঢালীর পুত্র তন্ময় ঢালীর সাথে দীর্ঘ দিন ধরে প্রেম চলছে।
কিন্তু শুক্রবার সন্ধার দিকে হঠাৎ তন্ময় ঢালীর মা মলিনা ঢালী তাদের বাড়িতে এসে
ছোট বোন অপুকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করেন।
এর পরেই অপমান সইতে না পেরে ক্ষোভে তার বোন অপু আত্মহত্যার উদ্দেশ্যে ঘরে থাকা কিটনাশক পান করে।

পরে তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।
সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত শনিবার ভোর রাতে তার মৃত্যু হয়।
এ ঘটনার পর অভিযুক্ত তন্ময় ঢালী ও তার পরিবারের সদস্যরা পলাতক রয়েছেন। ওই বাড়িতে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায় নি।

নাজিরপুর থানা পুলিশ জানায়,
এ ব্যাপারে কোন লিখিত অভিযোগ পান নি তারা। পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।
ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে স্থানীয় প্রভাবশালীরা উঠে পড়ে লেগেছে বলে নিহতের পারিবারের দাবী ।

Share this post