নর্থ সাউথ ও ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা

নর্থ সাউথ ও ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা

সোমবার দুপুরের দিকে ঢাকার বসুন্ধরা এলাকায় নিরাপদ সড়ক ইস্যুতে বিক্ষোভ মিছিল বের করা নিয়ে
নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে দিনভর পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের পর
নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা হয়েছে।
একই কারণে মঙ্গল ও বুধবার বন্ধ থাকবে ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি।
এছাড়া, মঙ্গলবার ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের এসএমএস করে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল
অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধের বিষয়ে অবগত করা হচ্ছে বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন কর্মকর্তা নিশ্চিত করেছেন।

east west university

অন্যদিকে ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে এক ঘোষণায় বলা হয়েছে,অনিবার্য কারণে আগামি ৭ ও ৮ অগাস্ট বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকবে।

সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের গেট ও রামপুরা সড়কে অবস্থান নেয় ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।
সরানোর চেষ্টা করলে পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছোঁড়ে তারা।
এর মধ্যেই আন্দোলনবিরোধী বেশ কিছু যুবক হেলমেট পরে শিক্ষার্থীদের ধাওয়া দেয়, মারধরও করে।

খবর পেয়ে দুপুরে তেজগাঁওয়ের আহসান উল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সংগঠিত হয়ে রামপুরার দিকে রওনা হয়।
তাদেরকে হাতিরঝিল এলাকায় বাধা দেয় পুলিশ।

পুলিশের সাথে সংঘর্ষে জড়ায় নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও। সড়কে নামার চেষ্টা করলে শিক্ষার্থীদের বাধা দেয় পুলিশ, বাধে সংঘর্ষ।

শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবোদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করেছে শিক্ষার্থীরা। পরে শাহবাগ মোড়ের দিকে মিছিল গেলে পুলিশের সাথে সংঘর্ষ শুরু হয়।

ছাত্রলীগ নেতাদের অভিযোগ, সাধারণ শিক্ষার্থীদের লেবাসে সরকার বিরোধী আন্দোলনের ষড়যন্ত্র চলছে।
গুঁজব রটানো হচ্ছে ছাত্রলীগের ব্যাপারে। ছাত্রলীগ সর্বদা ছাত্রদের পাশে ছিল থাকবে।

Share this post