ঢাবির ঘ ইউনিটে উত্তীর্ণদের ফের পরীক্ষা দিতে হবে

ঢাবির ঘ ইউনিটে উত্তীর্ণদের ফের পরীক্ষা দিতে হবে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষের
ঘ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ১৮ হাজার ৪শো শিক্ষার্থীকে আবারও পরীক্ষা দিতে হবে।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনস কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। শিগগির ঘোষণা করা হবে পরীক্ষার তারিখ। প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে এই পরীক্ষার ফল বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ করে আসছিল ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন সংগঠন।

ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান জানান,
গত ১২ অক্টোবর নেওয়া ভর্তি পরীক্ষায় যে ১৮ হাজার ৪৬৪ জনকে উত্তীর্ণ ঘোষণা করা হয়েছিল, কেবল তাদের নিয়েই এই পরীক্ষা হবে। পরীক্ষার দিন তারিখ পরে জানিয়ে দেওয়া হবে।

১২ই অক্টোবর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শুরুর ঘণ্টাখানেক আগেই অভিযোগ ওঠে প্রশ্ন ফাঁস হওয়ার। পরীক্ষা শুরুর ৪৩ মিনিট আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উত্তরসহ হাতে লেখা প্রশ্নপত্র পান শিক্ষার্থীরা। এই হাতে লেখা প্রশ্নের সঙ্গে অনুষ্ঠিত পরীক্ষার হুবহু মিল পাওয়া যায়। ঐ ঘটনায় সন্দেহভাজন ৬ জনকে আটকও করে পুলিশ।

পরে প্রশ্ন ফাঁসের সত্যতা নিশ্চিত করে তদন্ত কমিটি। এরপরও ১৬ অক্টোবর ঘোষণা করা হয় ফল। সেখানে দেখা যায় ‘ঘ’ ইউনিটের প্রথম ১০০ জনের তালিকায় থাকা অন্তত ৭০ জন ভর্তিচ্ছু অন্য ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে উত্তীর্ণ হতে পারেননি।

পাসের হার এবং প্রাপ্ত নম্বর অস্বাভাবিক বলে কয়েকদিন ধরে নতুন কে পরীক্ষা গ্রহনের জন্য আন্দোলন করে আসছিলেন শিক্ষার্থীরা।
বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রসংগঠনগুলোও নতুন করে পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে সরব হয়ে ওঠে।

মঙ্গলবার সকালেও ফল বাতিলের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে মৌন মিছিল করে ছাত্রলীগ। পরে চার দফা দাবিতে উপাচার্যকে স্মারকলিপি দেয় তারা।

এদিকে ঘ ইউনিটের পরীক্ষার বিষয়ে মঙ্গলবার দুপুরে সভা করে ডিনস কমিটি। সেখানে পাস করা পরীক্ষার্থীদের আবারও পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত হয় বলে জানান উপাচার্য।

প্রশ্ন ফাঁসের সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান উপাচার্য।

Share this post