আলোকচিত্রী শহিদুলকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে ভর্তির নির্দেশ

আলোকচিত্রী শহিদুলকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে ভর্তির নির্দেশ

রিমান্ড স্থগিত করে চিকিৎসার জন্য আলোকচিত্রী শহিদুল আলমকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে ভর্তির নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।
পাশাপাশি বৃহস্পতিবারের মধ্যে স্বাস্থ্য পরীক্ষার প্রতিবেদন জমা দিতে বলেছে আদালত।

মঙ্গলবার শহিদুলকে রিমান্ডে পাঠানোর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ও তাকে হাসপাতালে পাঠানোর আবেদন
জানিয়ে তার স্ত্রী রেহনুমা আহমেদের করা এক রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেন
ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার এই নির্দেশ দেন।

দ্রুত হাসপাতালে ভর্তির নির্দেশের পাশাপাশি হাইকোর্ট আগামী বৃহস্পতিবার
সকাল সাড়ে ১০টার মধ্যে শহিদুলের শারীরিক অবস্থার বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন ড. কামাল হোসেন ও ব্যারিস্টার সারা হোসেন।

আদেশের পর ড. কামাল হোসেন সাংবাদিকদের বলেন,
যেহেতু আদালত দ্রুত উনাকে হাসপাতালে স্থানান্তরের নির্দেশ দিয়েছেন, সেই পর্যন্ত তার রিমান্ড স্থগিত থাকবে।

মিথ্যা তথ্য দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার অভিযোগে রোববার শহিদুল আলমকে
তার ধানমন্ডির বাসা থেকে আটক করে পুলিশ। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) আইনের
৫৭ ধারায় শিক্ষার্থীদের মধ্যে উসকানিমূলক মিথ্যা প্রচারের অভিযোগে ওই দিনই তার বিরুদ্ধে মামলা করে গোয়েন্দা পুলিশ।

ঐ মামলায় সোমবার আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড
আবেদন করা হলে মহানগর হাকিম আসাদুজ্জামান নূরের আদালত ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মামলার এজাহারে শিক্ষার্থীদের নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন নিয়ে ফেসবুক, ইউটিউবসহ সামাজিক যোগাযোগের
বিভিন্ন মাধ্যমে গুজব ও উসকানি ছড়ানোর অভিযোগ আনা হয় তার বিরুদ্ধে।

Share this post